শনিবার , ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং , বাংলা: ১৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ২৫শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভাণ্ডারিয়া ও ইন্দুরকানী দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে কম্বল বিতরণ

ভাণ্ডারিয়া ও ইন্দুরকানী দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে কম্বল বিতরণ

ভাণ্ডারিয়া প্রতিবেদক || জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়োর হোসেন মঞ্জু এম.পি এর প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি সামাজিক উন্নয়ণ মূলক দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থা(ডি.কে.এস)এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার পিরোজপুরের ইন্দুরকানী এবং ভাণ্ডারিয়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রতিবছরের ন্যায় এবছর ও পর্যায়ক্রমে সুবিধাবঞ্চীত,অসহায় দুঃস্থ শীতার্ত মাণুষের মাঝে বিনামূল্যে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়।
এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার ২নম্বর পত্তাশী ইউনিয়ন এবং দুপুরে ৩নম্বর বালিপাড়া ও সকালে ১নম্বর পাড়েরহাট ইউনিয়নে পৃথকভাবে বিতরণ করা হয়। ২নম্বর পত্তাশী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি-জেপির ইউনিয়ন প্রধান কার্যালয় প্রাঙ্গনে বিতরণ করেন জাতীয় পার্টি-জেপির ইন্দুরকানী উপজেলা সাধারণ সম্পাদক এবং ঐ ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো.শাহীন হাওলাদার। ৩নম্বর বালিপাড়ায় বিতরণ করেন ঐ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কবির হোসেন বয়াতি এবং ১নম্বর পাড়েরহাট ইউনিয়নে বিতরণ করেন ঐ ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. কামরুজ্জামান তালুকদার শাওন। পৃথক ভাবে এসকল স্থানে বিতরণ কালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আনোয়োর হোসেন মঞ্জু এমপি এর পক্ষে তার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মেজবা উদ্দিন, জাতীয় পার্টি-জেপির ইন্দুরকানী উপজেলা সহ সভাপতি মো. রুহুল আমীন,সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মনিরুজ্জামান রানা, জাতীয় পার্টি-জেপির মহিলা পার্টির উপজেলা সভানেত্রী রাজীয়া সুলতানা রানী,ছাত্রসমাজের উপজেলা সভাপতি আক্তারুজ্জামান ও কলেজ ছাত্রসমাজের মো. তাজুল ইাসলাম প্রমুখ।
এদিকে গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়োর হোসেন মঞ্জু এমপি এর প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি সামাজিক উন্নয়ণ মূলক দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ৫নম্বর ধাওয়া ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে বিতরণ করেন ঐ ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. ফিরোজ আলম মুন্সী। এসকল স্থানে বিতরণ কাজে সহায়তা করেন সংস্থার পক্ষে আতিকুজ্জামান খোকন, কাজী আতাহার হোসেন এবং মো. কবির হোসেন,জনপ্রতিনিধি ছাড়াও স্ব স্ব স্থানীয় প্রবীণ সমাজসেবিগণ।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!