রবিবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং , বাংলা: ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ২৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ইন্দুরকানীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানী ইমামের বিরুদ্ধে মামলা

ইন্দুরকানীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানী ইমামের বিরুদ্ধে মামলা

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি || পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরন করে আটকে রেখে যৌন হয়রানীর অভিযোগে স্থানীয় একটি মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার রাতে ওই স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে উপজেলার পাড়েরহাট ইউনিয়নের বাটাজোড় বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদের ইমাম আল-হাফিজ ওরফে হাফিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
অভিযুক্ত ইমাম হাফিজুল ইসলাম জেলার কাউখালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের নাংগুলি গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে। ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রী উপজেলার বাড়ৈখালী এসজিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। সে ওই ইমামের কাছে আরবী শিক্ষা গ্রহন করতো।
থানায় দায়ের করা মামলা ও ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যায় ওই স্কুল ছাত্রী তার খালা বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে ওই ইমাম তাকে কথা আছে বলে ফুসলিয়ে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই মসজিদ সংলগ্ন উত্তর পাশে তার (ইমাম) থাকার কক্ষে নিয়ে যায় । সেখানে নিয়ে ওই স্কুল ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্পর্শ কাতর স্থানে হাত দেয়। এসময় ওই স্কুল ছাত্রী ডাক চিৎকার দিতে চাইলে সেখানে থাকা গরু জবাই দেয়ার চাকু দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হবে বলে হুমকী দেয়।পরে ওই কক্ষে তালা দিয়ে তাকে আটকে রাখে। ওই রাতে স্কুল ছাত্রীর স্বজনরা তাকে অনেক খোঁজা-খুজির পর ওই ইমামের ঘরে তালা বদ্ধ ও অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করেন।
স্থানীয়রা জানান, ওই রাতে স্থানীয়রা ওই ইমামকে আটক করে পাড়েরহাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও উপজেলা জাতীয় পার্টি (জেপি) এর সহ সভাপতি মো. গোলাম সরোয়ার বাবুলের কাছে নিয়ে যান। পরে ইউপি চেয়ারম্যান ওই ইমামকে একশত জুতা পেটা ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। তবে ইউপি চেয়ারম্যান মো. গোলাম সরোয়ার বাবুল জানান, ওই রাতে স্থানীয়রা ইমামকে আটকে আমার কাছে নিয়ে আসেন তারা জুতাপেটা করেছে। জরিমানার বিষয়টি তিনি এরিয়ে যান।
ইন্দুরকানী থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির জানান, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদীয় হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত ইমামকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!