রবিবার , ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং , বাংলা: ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ১৮ই সফর, ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভাণ্ডারিয়ায় টানা ৩ মাস জামাতে নামাজ পড়ে নতুন সাইকেল পেল ৪ শিশু

ভাণ্ডারিয়ায় টানা ৩ মাস জামাতে নামাজ পড়ে নতুন সাইকেল পেল ৪ শিশু

মামুন হোসেন ভাণ্ডারিয়া || পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় ৩ মাস টানা জামাতে নামাজ পড়ায় চার শিশুকে সাইকেল উপহার দেয়া হয়েছে। ঈদে দিন সালাত আদায় করে মসজিদ কর্তৃপক্ষ বিজয়ীদের হাতে এ উপহার তুলে দেন। এ সময় ভাণ্ডারিয়া উপজেলার উত্তর শিয়ালকাঠী খেয়াঘাট বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের সেক্রেটারী মো: খালেদ খান ও ওই জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা রায়হান ছিদ্দিক সহ মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে মসজিদ কমিটি ঘোষণা করে কোনো শিশু টানা ৩ মাস পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতে পড়লে তাকে একটি নতুন বাই সাইকেল দেয়া হবে। এরপর নির্ধারিত দিন থেকে ১৮ শিশু- কিশোর এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। যাদের প্রত্যেকের বয়স ছিলো ১০ থেকে ১২ বছর। শেষ পর্যন্ত চার শিশু শর্ত পূরণ করলে তাদের বাই সাইকেল উপহার দেওয়া হয়। বিজয়ী শিশুরা হল- উপজেলার উত্তর শিয়ালকাঠী গ্রামের নুর মোহাম্মদ খলিফার ছেলে আমান খলিফা, নুর কামালের ছেলে সুলাইমান খলিফা, রফিকুল খলিফার ছেলে নিরব, মানিক মীরের ছেলে সাইফুল প্রমুখ্য। সাইকেল পেয়ে আমান খলিফা নামের এক শিশু জানায়, ‘আমি আর কখনোই নামাজ ছাড়বো না।’ আমি নামাজকে অনেক ভালবাসি এখন। নিরব খলিফা নামের অপর শিশু জানায়, সাইকেলটি তার জীবনের সব থেকে বড় উপহার । ঈদ দিনে সবার সামনে উপহার পেয়ে অনেক খুশি তিনি। উত্তর শিয়ালকাঠী খেয়াঘাট বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা রায়হান ছিদ্দিক বলেন, ‘বর্তমান সময়ে ফেজবুক ও আকাশ সংস্কৃতির কবলে পড়েছে। তাই আমাদের শিশুরা ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষা থেকে পিছিয়ে পড়ছে। তাই আমরা শিশুদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে এমন ঘোষণা দিয়েছিলাম।’ এ প্রতিযোগিতা প্রতিটা জামে মসজিদে মসজিদে শুরু করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করছেন। উত্তর শিয়ালকাঠী খেয়াঘাট বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের সেক্রেটারী মো: খালেদ খান জানান, এটাই আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ অনুষ্ঠান। এমন অনুষ্ঠানে সহযোগিতা ও উপস্থিত হতে পেরে আমি আনন্দিত। ভবিষ্যতে এ রকম আরো উদ্যোগ নেয়া হবে।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!