সোমবার , ৮ই মার্চ, ২০২১ ইং , বাংলা: ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ২৩শে রজব, ১৪৪২ হিজরী

নেছারাবাদে এ্যাম্বুলেন্স চালকদের অঘোষিত ধর্মঘট 

নেছারাবাদে এ্যাম্বুলেন্স চালকদের অঘোষিত ধর্মঘট 
নেছারাবাদ প্রতিনিধি || নেছারাবাদ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রনি দত্ত এর অনুসারি এক লোকের সাথে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স চালকের দন্ধে নেছারাবাদে অঘোষিতভাবে বন্ধ রয়েছে উপজেলার সকল এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস।
গত শনিবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এলাকায় ওই দন্ধের ঘটনা ঘটে। এ কারনে রোববার সকাল থেকে এ রিপোর্ট লেখা পূর্ব পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসসহ সর্বপ্রকার প্রাইভেট এ্যাম্বুলেন্সও চলতে দেখা যায়নি।
এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে জরুরী রোগীর স্বজনরা। জরুরি রোগীদের অনেককে উচ্চ ভাড়ায় মাহেন্দ্র করে বিভাগীয় শহরে উচ্চ চিকিৎসার জন্য ছুটেছেন।
হাসপাতালের সরকারি এ্যাম্বুলেন্স চালক ইব্রাহিম অভিযোগ করে বলেন, ঘটনার দিন রাতে ভাইস চেয়ারম্যান রনি দত্তের অনুসারিরা একজন রোগীকে বরিশাল নিবেন বলে তাকে ফোন দেয়। এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার ইব্রাহিম ছুটে এসে রোগীর রেফারেন্স কাগজ দেখে গাড়ীতে নিবেন বলে জানালে ভাইস চেয়ারম্যান রনি দত্তর সাথে কথার কাটাকাটি বাধে। এতে আচমকা চেয়ারম্যানের এক অনুসারি ড্রাইভার ইব্রাহিমের মাথায় ঘুষি মারে। এতে আঘাত পেয়ে ড্রাইভার অসুস্থ হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তাই অসুস্থতার কারনে তিনি এ্যাম্বুলেন্স চালানো সাময়িক বন্ধ রেখেছেন।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রনি দত্ত জয় বলেন, সামন্য তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ড্রাইভারের সাথে তার লোকের একটু কথার কাটাকাটি হয়েছিল। এজন্য তিনি রোবার সকালে হাসপাতালে গিয়ে তার অনুসারি ওই ছেলেকে চড় থাপ্পর দিয়ে উপযুক্ত বিচার করেছেন। তাছাড়া ওই ড্রাইভার প্রায়ই ছুটিতে থাকেন। এতে অনেক রোগীরা ভোগান্তি পড়ে।
হাসপাতালের টি,এইচ,ও ডা: ফিরোজ কিবরিয়া জানান,ওই ঘটনায় ড্রাইভার ইব্রাহিম একটু অসুস্থ। এজন্য আজকে তিনি গাড়ী চালানো বন্ধ রেখেছেন। তিনি বলেন বিষয়টি আজকের মধ্য সমাধান হয়ে যাবে।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!