শুক্রবার , ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং , বাংলা: ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ৪ঠা রজব, ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

ভান্ডারিয়ায় শ্যামা পূজা উপলক্ষে ধর্মীয় সাংস্কৃতিকানুষ্ঠানে মানুষের ঢল

ভান্ডারিয়ায় শ্যামা পূজা উপলক্ষে ধর্মীয় সাংস্কৃতিকানুষ্ঠানে মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিনিধি| পিরোজপুরের ভা-ারিয়ায় রোববার রাতে হিন্দুধমালম্বীদের দ্বিতিয় ধর্মীয় বড় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী শ্যামা (কালি)পূজা অনুষ্ঠিত হয়। পূজার রাতে ভা-ারিয়া পৌর শহর সহ উপজেলার অন্য ছয়টি ইউনিয়নে সার্বজনীন,ব্যাক্তি উদ্যোগে এবং মানষিক পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। অনেক স্থানে পূজার পরের দিন সোমবার সন্ধ্যা রাতথেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ধর্মীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ধর্মীয় যাত্রপালা শেষে সকাল থেকে চলে মহা প্রষাদ বিতরণ। আর দুর দুরান্ত থেকে আগত ভক্তরা অনুষ্ঠান উপভোগ শেষে প্রষাদ গ্রহন করে গন্তব্যে পৌঁছায়। উপজেলার বহু মন্দির ঘুরে দেখা গেছে, দীপাবলির আলো ছাড়াও মন আকৃষ্ট করার মত বিভিন্ন ধরনের লাইটিং,ব্রাক্ষ্মণের মন্ত্র পাঠে নিজের এবং পরিবারের মঙ্গল কামনায় শ্যামা মায়ের পায়ে পুষ্প,পল্লবী হাতে করো জোড়ে মায়ের পায়ে অঞ্জলী প্রদান শেষে উপজেলা কেন্দ্রীয় মদন মোহন জিউর মন্দির,দক্ষিণ ভা-ারিয়া বামুনের হাওলা শ্রীগুরুসংঘ মন্দির, লক্ষ¥ীপুরা রায় বাড়ি,ভিটাবাড়িয়ার মৃধা বাড়ি মন্দিরে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং এ এলাকার সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি এর সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ূঁ কামনায় বিশেষ সমবেত প্রার্থণা অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে পৌর শহরের দক্ষিণ ভা-ারিয়া বামুনের হাওলা শ্রীগুরুসংঘ মন্দির প্রাঙ্গনে পরেরদিন সোমবার সন্ধ্যা রাত থেকে শুরু করে গতকাল মঙ্গলবার সূর্যদয় পর্যন্ত চলে ধর্মীয় আলোচনা,শ্যামা সঙ্গীত এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ধর্মীয় যাত্রাপালা ভক্তের ভগবান শ্রীকৃষ্¥ । এ অনুষ্ঠান উপভোগ করতে এ উপজেলা ছাড়াও পার্শবর্তী কাউখালী, ইন্দুরকানী,রাজাপুর,কাঠালিয়া,আমুয়া ছাড়াও পিরোজপুর জেলা শহরের বিভিন্ন ধমর্, পেশার কয়েক শত মানুষ এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নের্তৃবৃন্দ,সামাজিক সংগঠনের নের্তৃবৃন্দের উপস্থিতিতে মন্দির প্রাঙ্গনে পরিনত হয় এক মিলন মেলায়।
তবে পূর্বে পূজার পরেরদিন জোড়া নৌকায় করে প্রতিমা নিয়ে উপজেলা সদরের থানা সংলগ্ন পোনা নদীতে প্রতিমা প্রদর্শণ এবং দশহরা অনুষ্ঠিত হত এখন তা কালের বিবর্তনে হাড়িয়ে গেছে। এখন আর কোথাও তা হতে দেখা যায়নি।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!