শনিবার , ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , বাংলা: ১৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে আ’লীগের মানববন্ধন

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে আ’লীগের মানববন্ধন

পিরোজপুর প্রতিনিধি || পিরোজপুরে বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণ চেষ্টার মামলার আসামী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ অন্য আসামীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন পালিত হয়েছে। আজ শনিবার সকালে শহরের টাউনক্লাব সড়কে পৌর ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের উদ্যোগে এ মানববন্ধন পালিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন এর মেয়ের বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল আলীম ও মো: শাওন সহ ২০/২৫ জনসন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে গত ১২ সেপ্টেম্বর সদর থানায় মামলা দায়ের করা হলেও অজ্ঞাত কারনে কেন এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। তারা বলেন, ছাত্রলীগ নামধারী এসব সন্ত্রাসীদের এ হেন অনৈতিক কর্মকান্ডের কারনে আজ দলের ভাবমুর্তি ক্ষতির সন্মুখিন। তাই অবিলম্বে এসব ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় এনে আওয়ামীলীগ ও অংগসংগঠনের ভাবমুর্তি উদ্ধারের জন্য পুলিশ সুপার ও পুলিশের প্রতি আহবান জানান। বক্তারা দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে এ সকল সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে দল থেকে বহিস্কার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনকে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আবেদন জানান।
শহরের কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষের অংশগ্রহনে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আহসান, গাজী আপলাউদ্দিন, সহপাঠী এ্যানী রহমান, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিমউদ্দিন সোহেল সহ আওয়ামীলীগ ও অংগসংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

উল্লেখ্য গত ১১ সেপ্টেম্বর আছর নামাজ বাদ নিজ বাসভবনে তার মেয়ের বিয়ের আক্দ অনুষ্ঠানে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক অন্য আসামীদের নিয়ে তাদের বাড়িতে ঢুকে অনুষ্ঠান থেকে তার মেয়েকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তখন উপস্থিত আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীরা বাধা দিলে তার মেয়েকে অপহরণ করতে না পেরে বর পক্ষকে নানা হুমকি দেয়। এ ঘটনার পর গ্রাম থেকে আসা বর পক্ষের লোকজন ভয়ে বিয়ে বন্ধ করে তাদের বাড়িতে চলে যান। এ সময় অনিরুজ্জামান অনিক হুমকি দিয়ে বলে, তার মেয়েকে আলীম ছাড়া অন্য কারও সাথে বিয়ে দেয়া যাবে না। অন্য কারো সাথে যদি বিয়ে দেয়া হয় বাসর ঘরে মেয়ের স্বামীকে হত্যা করে লাশ গুম করা হবে এবং মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হবে। এ ব্যাপারে কনের পিতা দেলোয়ার হোসেন অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল আলীম ও মো: শাওন সহ ২০/২৫ জন এর বিরুদ্ধে গত ১২ সেপ্টেম্বর সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!