শুক্রবার , ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , বাংলা: ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , হিজরি: ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

অপহৃত মাদরাসা ছাত্রী দুই মাস পর উদ্ধার

অপহৃত মাদরাসা ছাত্রী দুই মাস পর উদ্ধার

নাজিরপুর প্রতিনিধি | পিরোজপুরের নাজিরপুর থেকে অপহৃত এক মাদরাসা ছাত্রীকে দুই মাস পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে পার্শ্ববর্তী নেছারাবাদ থানার জগদপট্টি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় জাহিদুল ইসলাম সাগর নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর পিতা গোলাম রাব্বানী বাদী হয়ে শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আটক জাহিদুল ইসলাম সাগর ও রফিক নামে দুজনকে আসামী করে নাজিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

 মামলা সূত্রে জানা যায়, অপহৃত সাবিকুন নাহার লামিয়া উপজেলার লেবুজিলবুনিয়া ফাজিল মাদরাসার দশম শ্রেণীর ছাত্রী এবং অভিযুক্ত জাহিদুল ইসলাম সাগর পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী। সে জেলার স্বরুপকাঠী উপজেলার জগদপট্টি গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। কয়েক মাস আগে জাহিদুল ইসলাম সাগর ওই ছাত্রীর এলাকায় রাজমিস্ত্রীর কাজ করতে আসে। এ সময় মাদরাসায় আসা-যাওয়ার পথে সে (জাহিদুল ইসলাম সাগর) ওই ছাত্রীকে নানা ধরণের কু-প্রস্তাব দিতো। এ ঘটনা ওই ছাত্রী তার বাবাকে জানালে তিনি অভিযুক্ত সাগরসহ তার সহযোগী রফিককে তার মেয়েকে বিরক্ত করতে নিষেধ করলে তারা ওই ছাত্রীকে অপহরণের হুমকি দেয়। পরে গত ২৩ জুলাই বেলা ১১টার দিকে ওই ছাত্রী তার ফুফু বাড়ীতে বেড়াতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ী থেকে বের হলে উপজেলার বৈঠাকাটা টেম্পুষ্ট্যান্ডে মেয়েটিকে একা পেয়ে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। দীর্ঘদিন ধরে খোঁজা-খুঁজির পর শনিবার মেয়েটির অবস্থান নিশ্চিত হয়ে পুলিশের সহায়তার ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় পুলিশ অভিযুক্ত জাহিদুল ইসলাম সাগরকে আটক করলেও রফিক পালিয়ে যায়।

নাজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মুনিরুল ইসলাম মুনির জানান, ওই ছাত্রীর বাবার লিখিত অভিযোগ পেয়ে থানার একটি মামলা রুজু করা হয়েছে এবং অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারসহ প্রধান আসামী জাহিদুল ইসলাম সাগরকে আটক করা হয়েছে।

এমন আরো খবর:

error: লেখা সংরক্ষিত!